ArticlesUncategorized

নেতারা কর্মীদের থেকে কীভাবে ক্রমাগত উন্নতির অনুপ্রেরণা পেয়ে থাকেন?

0

একটি প্রতিষ্ঠানের মূল চালিকা শক্তিই হলো উক্ত প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীবৃন্দ। অতএব কোন প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীরা তাদের কাজের প্রতি যতটা আগ্রহী এবং দক্ষতার সহিত কাজ করে সে প্রতিষ্ঠানটি তত দ্রুত সফলতা অর্জন করতে পারে। আর কর্মীদের কাজের প্রতি আগ্রহী করে তুলতে, দক্ষতা বাড়াতে এবং সঠিকভাবে পরিচালনার জন্য প্রয়োজন একজন উপযুক্ত নেতা বা লিডার। যিনি নিজেও কাজের প্রতি যথেষ্ট দক্ষতার অধিকারী হবেন এবং একটি টিমকে সুষ্ঠভাবে পরিচালনা করার মতো যোগ্য হবেন।

নেতা ও কর্মীর সম্মিলিত প্রচেষ্টায় প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন সম্ভব; Source: Startupphype.com

মনে করুন, আপনি আপনার টিমের জন্য বেশকিছু কর্মী খুব যাচাই-বাছাই করে সংগ্রহ করলেন। এবং যার যার যোগ্যতা অনুযায়ী তাদেরকে নির্দিষ্ট পদে নিয়োগ দিলেন। আপনার দায়িত্ব কি এতোটুকুকেই সীমাবদ্ধ? না, তারা যতই দক্ষ হোক না কেন, আপনার কাজগুলো সঠিকভাবে সম্পন্ন করতে হলে তাদের সাথে আপনাকেও কাজ করতে হবে। টিমের প্রত্যেকটি কর্মীকে আরো দক্ষ করে গড়ে তুলতে হবে। তাদেরকে শেখানোর পাশাপাশি প্রতিনিয়ত আপনাকেও নতুন কিছু শিখতে হবে। নতুন নতুন চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হবে। এতে কর্মীদের দ্বারা সম্পাদিত কাজের প্রতিটি সফলতাই আপনাকে অনুপ্রাণিত করে তুলবে। মোটকথা, আপনার দ্বারা পরিচালিত টিমের প্রতিটি কর্মীর অর্জনগুলোই আপনার জন্য অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করবে।

কর্মীদের থেকে ক্রমাগত উন্নতির অনুপ্রেরণা

একটি প্রতিষ্ঠানের উন্নতির জন্য প্রয়োজন নেতা ও কর্মীর সম্মিলিত প্রচেষ্টা। সাধারণত যেকোনো প্রতিষ্ঠানের নেতা তার কর্মীদের অনুপ্রাণিত ও উন্নত করার মাধ্যমে তাদের কাছ থেকে ভালো ফলাফল পেয়ে থাকেন। অপরদিকে সেই ভালো ফলাফল ও কাজের ক্রমাগত উন্নতির দ্বারা নেতাও অনুপ্রাণিত হোন। তাই একজন নেতার প্রধান কর্তব্য হলো কর্মীদের যথাযথভাবে অনুপ্রাণিত ও উন্নত করা।

কর্মীদের কাজে উন্নতির মাধ্যমে নেতার অনুপ্রেরণা; Source: Deputy.com

আপনার কর্মীদের অবিচ্ছিন্ন উন্নতি বলতে শুধুমাত্র সাধারণ পদোন্নতিকেই বোঝায় না, তাদের কর্মদক্ষতা উন্নত করার বিষয়ও হতে পারে। কর্মদক্ষতা বৃদ্ধির সাথে সাথে তাদের দায়িত্বগুলো বুঝিয়ে দিন, যাতে তারা কাজে আরো মনোযোগী হতে পারে৷ আপনার টিমের প্রতিটি কর্মচারীকে তাদের নিজস্ব কাজসমূহকে নিজস্ব প্রক্রিয়ায় উন্নত করতে বলুন। এই উন্নত প্রক্রিয়াটি কর্মীদের নিজের সম্পর্কে আরও ভালো ধারনা সৃষ্টি করবে এবং তাদের পরিপূর্ণভাবে পদোন্নতির জন্য প্রস্তুত করবে।

কিছু নেতা তাদের অধীনস্থ সেরা কর্মীদের সহজে অন্য কোনো পদে স্থানান্তর অথবা পদোন্নতি দিতে চান না। যদি আপনার এই ধরণের কোনো মানসিকতা থেকে থাকে, তাহলে আপনি আপনার সেরা কর্মীদের হারাবেন৷ তাই প্রতিষ্ঠানে এমন একটি সংস্কৃতি তৈরি করা উচিত যেখানে প্রতিনিয়ত উন্নতি আশা করা হয় এবং সেই অনুযায়ী উত্থাপন বা পদোন্নতির মাধ্যমে কর্মীদের পুরস্কৃত করা হয়। তবেই আপনি আপনার কর্মীদের কাছ থেকে সেরা কাজটি পাবেন।

নিজের বিভাগের অবিচ্ছিন্ন উন্নতি

কর্মক্ষেত্রে অবিচ্ছিন্ন উন্নতি বলতে কেবল কর্মীদের পদোন্নতির বিকাশকেই বোঝায় না। এটি দ্বারা প্রতিষ্ঠানে আপনার বিভাগ এবং দায়িত্বের বিকাশকেও বোঝায়। সেই সাথে এই ক্রিয়াকলাপগুলো আপনার কর্মীদের কর্মদক্ষতা বিকাশেও সহায়তা করে। তাই আপনার বিভাগ বা টিমের উন্নতির জন্য ক্রমাগত এই তিনটি প্রশ্ন জিজ্ঞেস করা দরকার।

১. এই কাজটি করার জন্য কি এটাই সেরা উপায়?

কিছু কিছু কাজ শুধুমাত্র একটি নির্দিষ্ট উপায়ে সম্পাদিত হয়, কারণ কাজটি অনেক আগে থেকেই সর্বদা একই নিয়মে করা হয়ে আসছে। ফলে অনেক সময় কাজটি সঠিক উপায়ে করাই সবচেয়ে কঠিন হয়ে পড়ে। তাই একজন নেতার উচিত নিজেকে কমপক্ষে তিনবার এই প্রশ্নটি জিজ্ঞেস করা যে, “পৃথিবীতে এই কাজটি করার জন্য কি এটাই সেরা উপায়?” এক্ষেত্রে আপনার উত্তর হতে পারে, প্রযুক্তির উন্নয়নের সাথে সাথে কাজটি করার অনেক ভালো উপায় তৈরি হয়েছে৷ এতে করে আপনি উন্নত প্রযুক্তিভিত্তিক উপায়টি অবলম্বন করে সহজেই আপনার বিভাগের উন্নতি সাধন করতে পারেন।

কোনো পদক্ষেপ নেওয়ার সময় কর্মীদের অবগত করুন; Source: Profilepersonnel.co.za

আবার সঠিক সিদ্ধান্ত নেয়ার জন্য আমাদের নিজেদের অবস্থান, আচরন, কাজটির প্রতি ধারণা ইত্যাদির দিকে বাস্তব দৃষ্টি দেওয়া প্রয়োজন। তাই এই পদক্ষেপটি নেওয়ার আগে অবশ্যই সেই স্থানে কর্মরত কর্মচারীকে জিজ্ঞেস করার চেষ্টা করুন। এক গবেষণায় দেখা গেছে যে, “অনেক সময় প্রতিষ্ঠানে কর্মরত কর্মীরাই বাস্তবভিত্তিক একটি উপায় খুঁজে দিতে পারে, যেটা একজন নেতার মাথায় নাও আসতে পারে। তাই কোনো পদক্ষেপ গ্রহণের সময় অবশ্যই কর্মীদের সাথে আলোচনা করা উচিত।”

২. এমন কিছু আছে? যা আপনার করা দরকার কিন্তু আপনি করছেন না

এই প্রশ্নটি তখনই নিজেকে করা উচিত, যখন আপনি কাজের ফলাফল অনুযায়ী চাপটা অনেক বেশি অনুভব করছেন। এসময় এই প্রশ্নটি জিজ্ঞেস না করলে আপনি কিছুতেই আপনার বিভাগের উন্নতি করতে পারবেন না। কোন কাজগুলো শুধুমাত্র আপনার ক্লায়েন্ট বা গ্রাহকদেরই সহায়তা করবে না, বরং আপনার কর্মীদেরও উন্নত করতে সহায়তা করবে সেই সম্পর্কে একটি ধারণা তৈরি করুন। যাতে ভবিষ্যতে কর্মীদের পরিচালনা করতে আরো দক্ষ এবং ভালভাবে প্রস্তুত হয়ে উঠতে পারেন।

প্রতিষ্ঠানে ক্রমাগত প্রযুক্তির নতুনত্ব আনার চেষ্টা করুন; Source: lifeofpix.com

আবার আপনি যদি উৎপাদন কার্যক্রমে ক্রমাগত উন্নত প্রযুক্তির সন্ধান না করেন তাহলে আপনি পণ্যের বাজার হারাতে পারেন। উদাহরণস্বরূপ একসময় কোডাক চলচ্চিত্রের রাজা ছিলেন। কিন্তু যখন ডিজিটাল ফটোর প্রবর্তন হয় তখন কোডাক পরিচালকগণ বলেননি যে, “আমাদেরও ডিজিটাল ফটোগুলো তৈরি করা উচিত।” ফলস্বরূপ তারা তাদের চলচ্চিত্রের গুণগত মান হারাতে বসেছিলেন। সুতরাং তাদের অবশ্যই ডিজিটালটির দিকে ফোকাস করা উচিত ছিলো৷ ঠিক তেমনি প্রযুক্তির সাথে তাল মিলিয়ে ক্রমাগত প্রতিষ্ঠানে নতুনত্ব আনা প্রয়োজন।

৩. এমন কিছু আছে? যা আপনি করছেন কিন্তু তা করা উচিত নয়

অনেক সময় আমরা এমন বাড়তি কিছু কাজ করে থাকি যা না করলেও চলে। কিন্তু কাজটি নিয়মিত করার ফলে তা আমাদের বা প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীদের অভ্যাসে পরিণত হয়ে যায়। এই ধরণের কোনো বাড়তি কাজ করে সময় নষ্ট করছেন কিনা নিজেকে এবং কর্মীদের জিজ্ঞেস করুন৷

যদিও এই প্রশ্নটি সচরাচর মাথায় আসে না। কিন্তু এই ক্রিয়াকলাপগুলো এমনও হতে পারে যা আপনি কাজের মাঝে করেন এবং যেই কারণে করেন সেগুলোর কোনো অস্তিত্বই নেই। যেমন: এমন একটি প্রতিবেদন তৈরি করলেন যা কেউ ব্যবহার করে না। অথবা এমন একটি প্রক্রিয়া উদ্ভাবন করলেন যার কোনো প্রয়োজনই নেই ইত্যাদি।

অর্থাৎ নিয়মিত এই প্রশ্নটি জিজ্ঞেস করার ফলে আপনার মাঝে একটি সফল বিভাগের জন্য প্রয়োজনীয় উন্নতির চেতনা তৈরি হতে পারে। আপনি যখন এই ধারাবাহিক উন্নতির ধারণাটিকে গুরুত্ব সহকারে নিবেন তখন কম ঝামেলায় ভালো ফলাফল অর্জন করতে সক্ষম হবেন। সেইসাথে আপনার কর্মীরাও তাদের ক্রমাগত উন্নতির সুযোগের জন্য আপনাকে ধন্যবাদ জানাবে।

Featured Image Source: Thebalancecareers.com

একজন স্ব-প্রতিষ্ঠিত নারী উদ্যোক্তা ও আমাদের অনুপ্রেরণা

Previous article

You may also like

Comments

Leave a reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More in Articles